দুঃস্বপ্ন ভাবনায় বাবার কড়ে আঙ্গুল

বাবাকে খুব ভালবাসতাম বলে(এখনও বাসি)আমার যেকোনো দুঃস্বপ্নের শুরু শেষ সবকিছুই হতো বাবাকে জড়িয়ে। তেমনি একদিনকার এক দুঃস্বপ্নে- বাবা আর আমি দূরের কোন এক মেলায় খুব ঘুরে বেড়াচ্ছি। বাবার কড়ে আঙ্গুলটা ডান হাতের শক্ত মুঠোয় ধরে বামহাতে কি যেন একটা চেটে খাবারমতো কাগজেমোড়া খাবার নিয়ে আমি আর বাবা ঘুরছি, আমি আর বাবা দেখছি মেলার রঙ্গিন সব জাঁকালো আয়োজন।

দুঃস্বপ্নের শুরুতে মেলা বিকেলের ঝলমলে রোদালোয় আলোকিত ছিলো। কিন্তু হঠাৎ কোত্থেকে ঘুটঘুটে অন্ধকার নামলো সবকিছু সব আলো অন্ধ করে দিয়ে।

আধারি ভয়ে আমি বাবার কড়ে আঙ্গুলটা আরো শক্ত করে ধরলাম, এই ভয়ে যে বাবাকে অন্ধকারে হারিয়ে ফেলবো/আমি হারিয়ে যাবো/আমরা হারিয়ে যাবো।

চারিদিক থেকে তখন শুধু ছুটোছুটি আর হুড়মুড়িয়ে পড়ে যাওয়া মানুষের আর্তনাদ ভেসে আসছিলো। ভীষণ ভয়ে বাবার মুখটা ভালো করে একবার দেখার ইচ্ছে হলো, বাবা পাশে আছেন/ভালো আছেন জানার ইচ্ছে হলো। কোন একটা অভয়বাণীতে বাবা আমার ভয় কমাবেন, কি হচ্ছে চারিদিকে সেটা জানাবেন এই আশায় বাবার মুখের দিকে তাকালাম। কিন্তু মিশমিশে অন্ধকার আমার বাবার মুখটাও তখন অন্ধকারে আড়াল করে রেখেছে।

আমি আরো প্রচণ্ড ভয়ে আরো শক্ত বজ্রমুঠোয় বাবার কড়ে আঙ্গুলটা চেপে ধরলাম। কিন্তু বাবার কড়ে আঙ্গুলটা হঠাৎ-ই ভীষণ ঠাণ্ডা স্পর্শে আমি আমার বজ্রমুঠোয় অনুভব করলাম, অন্ধকারে বাবার আঙ্গুলটা এমন ঠাণ্ডা হওয়ার কারনটা ঠিক বুঝতে পারছিলাম না।

বাবার হাতে ঝাকুনি দিয়ে বাবাকে ডাকলাম ‘বাবা’… ডাকার সাথে সাথে হঠাৎ-ই ঘোর অন্ধকার কেটে গিয়ে একটা তীব্র আলোকরশ্মিতে জমকালো মেলাটা বদলে বীভৎস এক দঙ্গল লাশের মেলা চোখের সামনে দেখলাম! আর হাতের মুঠোয় যেখানে বাবার আঙ্গুলটা থাকার কথা ছিল সেখানে দেখতে পেলাম মিশমিশে অন্ধকারের চেয়েও কালো একটা আঙ্গুলসম মোটা লম্বায় হাতখানেক সাপ!! আর দেখলাম ‘নেই বাবা কোথাও নেই’ আছে শুধু হাতের মুঠোয় চেপে ধরা কালো ওই চিকন সাপ আর চারিদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অনেক অপরিচিত লাশ!!

প্রচণ্ড ভয় আর বোবা আর্তনাদে সাপটাকে মুঠোয় ধরে নিয়েই আমি লাশ ডিঙ্গিয়ে দৌড়াতে শুরু করলাম। আর দৌড়াতে দৌড়াতেই দেখছিলাম সাপটা আমাকে ছোবল দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে……এখনই হাত থেকে ছুড়ে দূরে ফেলে না দিলে ছোবল দিয়ে ফেলবে, কিন্তু আমি সাপটাকে ফেলে দিতে পারছিনা, আমার সেই দুঃস্বপ্ন ভাবনায় তখন শুধু-

ওটা আবার বাবার আঙ্গুল হয়ে যাবে

ওটা আবার বাবার আঙ্গুল হয়ে যাবে……

ওটা ফেলে দিলে বাবা হারিয়ে যাবে……ওটা ফেলে দেয়া যাবেনা, ওটা ফেলে দিলে হয়তো চিরতরে হারিয়ে যাবে আমার বাবার কড়ে আঙ্গুল……।।
পুনশ্চঃ জ্বর হলেই আমি ঘুমে ঘোরে প্রচুর দুঃস্বপ্ন দেখতাম। আর সেইসব দুঃস্বপ্ন মানেই ছিল সাপের তাড়ায় আমার দিক্বিদিক দুঃস্বপ্নপথে পালিয়ে বেড়ানো।

যাহোক দুঃস্বপ্ন শ্বাসকষ্টে আমার তখনকার ওষ্ঠাগত ছোট প্রান সেই দুঃস্বপ্নে আজও আমাকে অন্ধকারে চেপে ধরে, তাড়িয়ে বেড়ায় ভয় দেখাতে চায়। কিন্তু আমি ভয় পাইনা। কারণ সময় আমাকে এখন বড়ো বানিয়েছে, আমি বড়ো হয়ে গেছি। তাই দুঃস্বপ্ন এখন আর আমাকে ভয়ে ছোট করতে পারেনা…

12002858_1028678643829796_6916403788368507910_n

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s